প্রকাশ : ১৯ এপ্রিল, ২০১৮ ০৩:১৮:০৭
দু’স্প্রাপ্য হয়ে উঠছে মিঠা পানির মাছ : সংরক্ষণ অপরিহার্য
বাংলাদেশ বাণী, মীর ইমরান মাহমুদ, তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি : মাছে ভাতে বাঙ্গালী, চিরায়ত এই প্রবাদটির সাথে সব বাঙ্গালীই পরিচিত। অতি পরিচিত বাস্তবধর্মী আর শরীর উপযোগী আমীষ এর অভাব দিনে দিনে প্রকট হচ্ছে। বিশেষ করে দেশী মাছের অকাল এবং সংকট আমীষের অভাবের পাশাপাশি মিঠা পানির মাছের দীনতা দিনে দিনে স্পষ্ট হচ্ছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাজার ব্যবস্থা এবং দেশের খাল-বিল, পুকুর, জলাশয়সহ মৎস্যের আবাস্থল পর্যালোচনা, গবেষণা, করে দেখা গেছে মিঠা পানির মাছের শুন্যতা প্রকট আকার ধারন করেছে। যতই দিন যাচ্ছে ততোই মিঠা পানির অভাব দেখা দিচ্ছে। বোয়াল, শোল, কই, মাগুর, জেল, পুটি, মায়া, ছায়া, শিং, চ্যাং, বেতলাসহ বিভিন্ন ধরনের মিঠা পানির মাছ দুষ্প্যাপ্য হয়ে উঠেছে, বাংলাদেশ নদী মাতৃক দেশ এদেশের আর্থসামাজিক বাস্তবতায় নদ-নদী গুলোতে পূর্বের ন্যায় মৎস্যের অস্তিত্ব অনুভূত হয় না।

দেশের জনসাধারনের একটি বড় অংশ বরাবরই নদ-নদীতে মৎস্য শিকারের মাধ্যমে জীবন জীবিক নির্বাহ করে আসছে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়গুলোতে নদ নদীতে চাহিদানুযায়ী মাছের সন্ধান না পাওয়া দীর্ঘদিনের পেশা ত্যাগ করতে বাধ্য হচ্ছে অনেকে।

তথ্যানুসন্ধানে দেখা গেছে, নদ-নদীতে মৎস্য আরোহন কারীদের একটি অংশ সবধরনের মৎস্য আরোহন করে আর এ ক্ষেত্রে বংশ বিস্তারের সম্ভাবনা বিনাশ হয় বিশেষ করে খাওয়ার অযোগ্য অর্থাৎ রেনু জাতীয় মৎস্য বিনাশ হয়। এখনেই শেষ নয় সাতক্ষীরার উপজেলা তালার কিছু কিছু এলাকাতে লোনা পানির উপস্থিতির কারনে এবং লবনাক্ততার প্রসারের জন্য মিঠা পানির মৎস্যের অস্তিত্ব অনেকটা হুমকির মুখে।

গত কয়েক বছর যাবৎ বিভিন্ন হাট-বাজারগুলোতে দেশীয় মাছ তথা মিঠা পানির মাছের দেখা মেলে না। এক সময় হাট বাজার গুলোতে কই, মাগুর, জেল, শিং, চ্যাং, বেতলার সরব উপস্থিতি ছিল বিশেষ লক্ষনীয় কিন্তু বর্তমানের চিত্র সম্পূর্ণভাবে ভিন্ন মৎস্য বিশেষজ্ঞদের সাথে আলাপ কালে জানা গেছে, লবনাক্ততার পাশাপাশি সাম্প্রতিক বছর গুলোতে আমাদের দেশের অভ্যন্তর ভাগের জলাশয়গুলো যেমন আগাম শুকিয়ে যাচ্ছে অনুরুপভাবে দীর্ঘ খরার আবরনের ফলশ্রুতিতে জলাশয়ের নি¤œস্তরে থাকা দেশীয় মিঠার পানির মৎস্যের বংশ বিস্তারের ক্ষেত্র বিনষ্ট হচ্ছে।

উল্লেখ্য চ্যাং, শোল, বোয়াল, মাগুর, কৈ বিভিন্ন ধরনের মৎস্য প্রজাতির ডিম জলাশয়ের নি¤œস্তরে থাকে পরবর্তিতে বর্ষার আগমনী বর্তায় উক্ত ডিম অবমুক্ত হয় এবং রেনু পোনার উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু দীর্ঘ খরার কারনে সেই সাথে জলাশয় গুলোতে মৎস্য শিকারের নামে বিষ প্রয়োগের ঘটনাও ঘটে যে কারনে মিঠা পানির মৎস্যের অকাল দেখা যাচ্ছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অবশ্য রুই, কাতলা, মৃগেল, চিতল, মিনার কাপ, জাপানি পুটিসহ এই সকল মৎস্যের অস্তিত্ব বিদ্যমান, কারন চিংড়ী ঘেরগুলোতে উল্লেখিত মিঠা পানির মৎস্যের ব্যাপক উৎপাদন লক্ষনীয়।

এ ক্ষেত্রে চিংড়ী ঘেরের লবনাক্ত পানিতে বোরিং, পানির মাধ্যমে দুধ নোনতা করনের মাধ্যমে সাম্প্রতিক বছর গুলোতে ব্যাপক ভিত্তিক রুই, কাতলা, মৃগেল, জাতীয় মাছের চাষ হচ্ছে, দেশী এবং মিঠা পানির মাছের সংরক্ষন প্রবাহমান অবস্থান এবং অস্তিত্ব বিনাশ হতে দেওয়া যাবে না। মিঠা পানি মৎস্যের দুষ্প্যাপ্যতা রোধ করতে হবে, নতুব আগামী প্রজন্ম ভুলেই যাবে দেশী তথা মিঠা পানির হরেক রকম মৎস্যের নাম।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • প্রত্যাশিত পদ্মাসেতু প্রকল্পে রেলওয়ে'র স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরুদশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত : ১৮টি বিল পাসস্বাস্থ্যসেবার সুযোগ বাড়াতে ১১ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে এডিবিরোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত
  • প্রত্যাশিত পদ্মাসেতু প্রকল্পে রেলওয়ে'র স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরুদশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত : ১৮টি বিল পাসস্বাস্থ্যসেবার সুযোগ বাড়াতে ১১ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে এডিবিরোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত
উপরে