প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:১০:৩৩
ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন : গাইবান্ধায় গরুর গাড়ীতে বরযাত্রা
বাংলাদেশ বাণী, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধায় ডিজিটাল যুগে এনালগ গরুর গাড়ীতে করে বরযাত্রার আয়োজন করায় কালে গর্ভে হারিয়ে যাওয়া ঐহিত্য এলাকাবাসী উপভোগ করেছে। একসময় বাংলাদেশের সব অঞ্চলেই বিয়ের বরযাত্রায় পালকি প্রচলন ছিল। পরে পালকির জায়গায় দখল করে গরু ও মহিষের গাড়ী।

সে সময়ে গাইবান্ধা শহরের থানসিংপুরের গ্রামবাংলার ঐহিত্য নিয়ে ‘নোলক’ চলচিত্রটি তৈরী হয়। ‘নোলক’ চলচিত্রে ফেরদৌসী রহমানের গাওয়া আব্বাস উদ্দিনের জনপ্রিয় ‘ওকি গাড়ীয়াল ভাই,কত রব আমি পন্থের দিকে চা আয়ারে’...গানটি মানুষের মুখে মুখে শোনা যেত। পরে গরুর গাড়ী নিয়ে ‘আমার গরুর গাড়ীতে বউ সাজিয়ে ধুততুর ধুততুর ধুততুর ধু সানাই বাজিয়ে,যাব তোমায় শ্বশুর বাড়ী নিয়ে’...গানটিও সারাদেশে খুব জনপ্রিয়তা পায়।
কালের বিবর্তনে রিক্সা,ভ্যান,বাস,টেম্পু ,মাইক্রোবাস,বিমানসহ বিভিন্ন যানবাহনের প্রচলন বেড়ে যাওয়ার গরু ও মহিষের গাড়ীর ব্যবহার বিলুপ্ত হয়। বর্তমানে গ্রামবাংলার একসময়ের জনপ্রিয় ঐহিত্যবাহী গরু ও মহিষের গাড়ীতে বিয়ের জন্য বরযাত্রা আর চোখে পরে না।

গ্রাম-গঞ্জের এই ঐতিহ্যকে মনে করিয়ে দিতে এই ডিজিটাল যুগে এনালগ গরুর গাড়ীতে করে নিজের ছেলে আরিফুল ইসলামের বিয়ের বরযাত্রার আয়োজন করেন আব্দূন নুর। গত ২৪ নভেম্বর শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর গাইবান্ধা পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের চেরেঙ্গা গ্রামের আব্দূন নুর তার ছেলে আরিফুল ইসলামকে বর সাজিয়ে যাত্রী নিয়ে গরুর গাড়ীতে করে একই উপজেলার দৌরতপুর গ্রামের লিটন মিয়ার বাড়ীরে উদ্দেশ্যে রওনা হন। গরুর গাড়ীতে বানান হয় ছৈ ও পালকির ঘর।

নানান রঙের কাপর দিয়ে তা সাজানো হয়। গরুর গলায় ঘন্টি ঝুলান হয়। আর শিং মোরান হয় লাল কাপড় দিয়ে। বরের গাড়ীর সামনে লাগান হয় শুভ বিবাহ লেখা ফোমের বোর্ড। পথের দুই ধারে ভির জমে যায় উৎসুক জনতার এবং মাঝে মাঝে থামিয়ে গরুর গাড়ীর সঙ্গে ছবি তুলছে সবাই। দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে লিটন মিয়ার কন্যা সুরাইয়া আকতারকে বিয়ে করতে বরযাত্রী নিয়ে হাজির হন আরিফুল ইসলাম। তিনি বলেন, যান্ত্রিক পরিবহনের চেয়ে গরুর গাড়ীতে বরযাত্রী নিয়ে বিয়ে করতে আসায় বেশ ভাল লাগছে। আব্দূন নুর বলেন, গ্রামীণ ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে আমার ছেলের বিয়ের জন্য এরকম বরযাত্রার আয়োজন করি।

এতে পুরো ঐহিত্য রক্ষা হল। এ ধরণের আয়োজনে কনে পক্ষও বেশ খুশি হয়েছে। বিয়েতে হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ী ব্যবহার করায় মানুরষর মধ্যে বিশেষ করে বৃদ্ধদের অতীত ঐহিত্য স্বরণ করায় এলাকায় কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে।
সর্বশেষ সংবাদ
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
উপরে