প্রকাশ : ০৫ এপ্রিল, ২০১৬ ১৯:৪১:১৬
নড়াইলে নি:সঙ্গ পাখি পেঁচা, লক্ষ্মী পেঁচা ধন-সম্পদের দেবী !
বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নি:সঙ্গতা ও নিশাচর জীবনের প্রতীক পেঁচা। দেশের মফস্বল অঞ্চলে এখনো রাতে হুতুম পেঁচা ডাকলে তাকে গৃহস্থের অকল্যাণ হিসেবে ধরা হয়। তবে লক্ষ্মী জন্য আলাদা আয়োজন। লক্ষ্মী ধন-সম্পদের দেবী। তাঁর বাহন লক্ষী পেঁচা। লক্ষ্মীপেঁচা কোথাও বসলে যেন উড়ে না যায় সে জন্য গৃহস্থের চেষ্টার শেষ থাকে না। তাদের বিশ্বাস লক্ষ্মী পেঁচা বসলে ধনে-জনে পূর্ণ হবে।  জানা যায়, সাহিত্যে পেঁচার অবস্থান খাটো করে দেখার উপায় নেই। হুতোম  পেঁচার নকশা লিখে বাংলা সাহিত্যে স্মরণীয় হয়ে আছেন কালীপ্রসন্ন সিংহ। এ ছাড়াও জীবনানন্দ দাশের কবিতায় পেঁচার ব্যবহার অসংখ্যবার বিভিন্ন ভাবে এসেছে। পেঁচা মূলত: Stringiness বর্গভুক্ত নিশাচর শিকারি পাখি। পেঁচার মাথা বড়, মুখম-ল চ্যাপ্টা, পুচ্ছ গোলাকার ও ডানা চওড়া। এদের ডানার পালক নি:শব্দে ওড়ার জন্য পরিবর্তিত। শিকার করা ও শিকার ধরে রাখার জন্য পেঁচা বাঁকানো ঠোঁটের সঙ্গে নখরও ব্যবহার করে। রাতের স্বল্প আলোয় পেঁচার চোখ অধিক আলোর সংস্থান করতে পারায় এই শিকারি পাখিরা অন্ধকারে ভালোই দেখে। অক্ষিগোলক সামনে অগ্রসর থাকায় পেঁচারা দ্বিনেত্র দৃষ্টির অধিকারী। এদের চোখ এতটাই আলো শোষণ করে যে অনেক পেঁচা দিনের উজ্জ্বল আলোয় অস্বস্থি অনুভব করে। তবে কিছু দিবাচর পেঁচাও আছে। ছোট চোখওয়ালা লক্ষ্মীপেঁচারা ব্যতিক্রমী শ্রবণশক্তিধর। শুধু শব্দ দ্বারা চালিত হয়। নিরেট অন্ধকারে এরা শিকার ধরতে পারে। শব্দ ধরার জন্য এদের ও অন্য কতকগুলি পেঁচার মুখমণ্ডলীয় বিশেষ গঠন রয়েছে। মাথার গড়ন রূপান্তরিত হওয়ার জন্যই পেঁচার দুই কানে সামান্য আগে পরে শব্দ পৌঁছায় এবং মাথা ঘোরালে তারা অনুচ্চ শব্দেরও উৎস সনাক্ত করতে পারে, যেমন ইঁদুরের শস্যদানা চিবানোর সঠিক আওয়াজ। সাধারণত পেঁচা নি:সঙ্গচর। ডাক শুনেই এদের সনাক্ত করা যায় বলে অনেক পেঁচার নামকরণ তাদের ডাক অনুসারেই হয়েছে। সব পেঁচাই ডাকে, বিশেষত প্রজননকালে।  পেঁচা গাছের কোঠর, পাহাড় ও পাথরের গর্তে, পুরনো দালান বা কাক ও অন্যান্য পাখির পরিত্যক্ত বাসায় থাকে। কতক পেঁচা বাসা বানায়। পেঁচার হুট হুট শব্দের ডাক ও রহস্যময় নিশাচর স্বভাব নানা কুসংস্কারের ভিত্তি। আর এভাবেই পেঁচা মানুষের অলৌকিক চিন্তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। অধিকাংশ পেঁচা ছোট ছোট স্তন্যপায়ী ও পাখি শিকার করে খায়। এরা মাটিতে থাকা ছোট ইঁদুরজাতীয় স্তন্যপায়ী বা কীটপতঙ্গ ধরার সময় উঁচু জায়গা থেকে নিচে ছোঁ মারে। গাছের ডালপালা থেকেও পোকামাকড় এবং অন্যান্য শিকার ধরতে অভ্যস্ত। পৃথিবীর সর্বত্র পেঁচা ছড়িয়ে আছে। কুমেরু ও কতক মহাসাগরীয় দ্বীপ ছাড়া সব মহাদেশেই পেঁচা দেখা যায়। বাংলাদেশের ১৭ প্রজাতির পেঁচার মধ্যে ১৫টি স্থায়ী বাসিন্দা এবং দুটি পরিযায়ী। স্থায়ী বাসিন্দা পেঁচাদের মধ্যে রয়েছে লক্ষ্মীপেঁচা, খুড়–লে পেঁচা, হুতুম পেঁচা, ভুতুম পেঁচা, কুপোখ ও নিমপোখ।

বাংলাদেশ বাণী/কাসা/ডেস্ক/নি.প্রতি/উজ্জ্বল/নড়াইল/০৫/০৪/২০১৬. ০৭:৩৫ (পিএম) ঘ.    
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
উপরে