প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০০:২২:২৮
বৃদ্ধ বয়সে ও ফেরিওয়ালা দাশিয়ারছড়ার শতবর্ষী একজন আবুল হোসেন
বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকম, জাহাঙ্গীর আলম, কুড়িগ্রাম জেলা  প্রতিনিধি : দীর্ঘ ৬৮ বছরের বন্দি জীবন থেকে মুক্তি পেয়ে আলোর মুখ দেখলেও বৃদ্ধ বয়সে অভাব আর অনটন থেকে মুক্তি পায়নি কুড়িগ্রামের ফুলাবাড়ী উপজেলার সাবেক ছিটমহল দাশিয়ার ছড়ার কামালপুর গ্রামের ১০৩ বছরের বৃদ্ধ আবুল হোসেন।
ছোট বেলা থেকে গ্রামে গ্রামে ফেরি করে বেড়াতেন আবুল হোসেন। যৌবনে এসে আবুল হোসেন দুটি বিয়ে করেন। প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দুই স্ত্রী মিলে তার ছেলে ৪ মেয়ে ২ জন। দুই মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার পর আবুল হোসেন তার দশ বিঘা জমি ৪ ছেলের মাঝে সমান ভাবে ভাগ করে দেন। ছেলেরা বাবার জমির ভাগ পেয়ে নিজের ইচ্ছে মত বিয়ে করে যে যার সংসার পেতেছে। এখন আর বাবা মায়ের খোঁজ খবর নেয় না । তাই এ বয়সে আবুল হোসেন তার স্ত্রী ও নিজের দু’মুঠো খাবার যোগাড় করার জন্য গ্রামে গ্রামে ফেরি করে পাউরুটি ,বিস্কুট, সাবান , চকলেট, চানাচুর ইত্যাদী বিক্রি করে দিনে যা লাভ আসে, তা দিয়েই  কোন ভাবেই সংসার চালান ।
আবুল হোসেনের সাথে কথা হলে বাংলাদেশ বাণী টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, আগে অনেক দুরের গ্রামে গিয়ে ফেরি করে আসতাম, কিন্তু এখন আর পারিনা বাবা, অনেক বয়স হইছে, শরীল আর কুলায়না। তাই বেশী দুর যেতে পারি না। তিনি আর বলেন, এখন আমরা বাংলাদেশী হইছি, কিন্তু বাংলাদেশী কোন সুযোগ সুবিধা এ পর্যন্ত আমি পাইনি।
এলাকাবাসী জানান, আবুল হোসেন ফেরিকরার পাশাপাশি এলাকার বিভিন্ন বাড়ীতে গিয়ে হাস, মুরগীর ডিম কমদামে কিনে ফুলবাড়ী বাজারে একটু বেশি দামে খুচরা বিক্রি করেন। শতবর্ষী আবুল হোসেনের প্রতি একটু সহানুভূতি, তার বাকি জীবনটাকে দিতে পারে কষ্ট থেকে মুক্তি। বাংলাদেশ বাণী/কাসা/ডেস্ক/নি.প্রতি/জাহাঙ্গীর/কুড়িগ্রাম/১১/০২/২০১৬. ১২:২০ (এএম) ঘ.  
সর্বশেষ সংবাদ
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
উপরে