প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৩:৩৯:০০
সুন্দরগঞ্জে তিস্তার পানি হঠাৎ বৃদ্ধি : হাজারও পরিবার পানিবন্দি
বাংলাদেশ বাণী, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : উজান থেকে নেমে আসা ঢলে এবং অবিরাম বর্ষণের কারণে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত তিস্তা নদীর পানি হঠাৎ বৃদ্ধি পাওয়ায় হাজারও পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। চরাঞ্চলের রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিছিন্ন হয়ে গেছে। গৃহপালিত পশুপাখি নিয়ে পানিবন্দি পরিবারগুলো বিপাকে পড়েছে।

অনেকে উচুস্থানে, আশ্রয়কেন্দ্রে এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে আশ্রয় নিয়েছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে হঠাৎ তিস্তার পানি বাড়তে শুরু হয়। ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে প্রায় ৪ ফিট পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলার তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, চন্ডিপুর, শ্রীপুর ও কাপাসিয়া ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত তিস্তা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় চরাঞ্চলের প্রায় হাজারও পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

বেলকা ইউনিয়নের মফিদুল হক মন্ডল জানান, যে হারে পানিবৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে করে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে বিপদসীমা অতিক্রম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কাপাসিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন জানান, হঠাৎ পানি বেড়ে যাওয়ায় তার ইউনিয়নে পাঁচ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পরেছে।

এখন পযর্ন্ত সরকারি বেসরকারিভাবে কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নরুন্নবী সরকার জানান, ইউপি চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে পানিবন্দি পরিবারদের খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। বিষয়টি উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রাজধানীতে ট্রাফিক আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক বিভাগের অভিযানআগামী বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) : পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালানাজমুল হুদার আপিল খারিজ করে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশঐক্যফ্রন্টে ফাঁটল ! তারেক জিয়া মুল নেতৃত্বে ড. কামাল কর্তৃত্বহীনভারতের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড় গাজা'র আঘাতে মৃতের সংখ্যা ৩৩ জনতারেকের ভিডিও কনফারেন্সের বিষয়ে আইন পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে ইসি কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’রইউপি সদস্য ও এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ গণগ্রেফতার : ডিবি সদস্য আহত হওয়ায় পুরুষ শূন্য ঝিকরগাছার মাটিকোমরা গ্রামআজ থেকে আ’লীগের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু
  • রাজধানীতে ট্রাফিক আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক বিভাগের অভিযানআগামী বুধবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) : পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালানাজমুল হুদার আপিল খারিজ করে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশঐক্যফ্রন্টে ফাঁটল ! তারেক জিয়া মুল নেতৃত্বে ড. কামাল কর্তৃত্বহীনভারতের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে ঘূর্ণিঝড় গাজা'র আঘাতে মৃতের সংখ্যা ৩৩ জনতারেকের ভিডিও কনফারেন্সের বিষয়ে আইন পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে ইসি কমিশন চায় না নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হোক : সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি ইসিনয়া পল্টনে পুলিশের ওপর অতর্কিত আক্রমণ ছিল পূর্ব পরিকল্পিত : ডিএমপি কমিশনার জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ৭-১০ দিন আগে মাঠে সেনা মোতায়েন থাকবে : ইসি সচিবঢাকা টেস্ট : জিম্বাবুয়েকে ২১৮ রানে বিধ্বস্ত করলো স্বাগতিক বাংলাদেশনির্বাচন পেছানোর আর সুযোগ নেই : ইসি সচিবকোন প্রার্থী যেন বঞ্চিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে : সিইসিঢাকা টেস্ট : জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ৮ উইকেট দলীয় সরকারের অধীনে থেকে এবারের নির্বাচন ইতিহাস সৃষ্টি করবে : সিইসিজাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ পেছানোর সিদ্ধান্ত আজনতুন রাজনৈতিক জোট ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবেজাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রথম দিনে ১৭শ’ সংগ্রহ ১৪ নভেম্বর মধ্যে নির্বাচনের প্রার্থীদের আগাম প্রচার সামগ্রী অপসারণের নির্দেশ ইসি’রইউপি সদস্য ও এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ গণগ্রেফতার : ডিবি সদস্য আহত হওয়ায় পুরুষ শূন্য ঝিকরগাছার মাটিকোমরা গ্রামআজ থেকে আ’লীগের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু
উপরে