প্রকাশ : ৩১ আগস্ট, ২০১৮ ০৪:০৩:৩৭
কেশবপুরে মরা বটগাছের ডাল ভেঙ্গে ১০ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন
বাংলাদেশ বাণী, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : কেশবপুর উপজেলার বেলোকাটি গ্রামে একটি ঝুঁকিপূর্ণ মরা বটগাছের ডাল ভেঙ্গে বিদ্যুতের তারের ওপর পড়ে প্রায় সময় আশপাশের ৫/৬ গ্রাম থাকে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন। প্রায় প্রতিনিয়ত ওই গাছের ডাল বিদ্যুতের তারে পড়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনা ঘটলেও এ যেন দেখার কেউ নেই। গত মঙ্গলবার বিকেলেও ওই গাছের ডাল ভেঙে তারের ওপর পড়লে এলাকাটি প্রায় ১০ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। আতঙ্কে লোকজন  দিকবিদিক ছুটোছুটি করতে থাকে। এলাকাবাসি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেও কোন সুফল পায়নি।

যশোরের কেশবপুর উপজেলার বেলোকাটি গ্রামের মোসলেম উদ্দিন মোড়লের বাড়ি সংলগ্ন সরকারি রাস্তার উপর প্রায় ২’শ বছর বয়সি একটি সরকারি বটগাছ ৪/৫ বছর আগে মারা গেছে। কিন্তু সরকারের দায়িত্বশীল কর্তারা দীর্ঘদিনেও গাছটি অপসারণ করেনি। ফলে মূল্যবান ওই গাছটি ভেঙেচুরে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

গাছটি টেন্ডারের আওতায় আনলে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হতো না। বর্তমান এর ডাল ভেঙে প্রতিনিয়ত পাশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুৎ লাইনের ওপর পড়ছে। ফলে বিদ্যুতের তার ছিড়ে ওই এলাকার ৫/৬ গ্রাম প্রায় সময় থাকে বিদ্যুৎহীন। তাছাড়া বট গাছটির দু’পাশ দিয়ে দু’টি সড়ক চলে গেছে। এর একটি গড়ভাঙ্গা বাজার ও অপরটি কেশবপুর ভায়া পাঁজিয়া মেইন সড়কে মিশেছে।

এ গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা দুটি দিয়ে প্রতিদিন শত শত হাটুরে ও পথচারীসহ যানবাহন চলাচল করে থাকে। মাঝেমধ্যে বিদ্যুতের তার ছিড়ে পড়লে আতঙ্কে জনসাধারণের চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এলাকাবাসি গাছটি অপসারণের জন্যে জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করেও কোন সুফল পায়নি। এরপরও গত মঙ্গলবার বিকেলে পুনরায় ওই বটগাছের ডাল ভেঙে বিদ্যুতের তারের ওপর পড়লে সমস্ত রাত গ্রামগুলি অন্ধকার হয়ে পড়ে। গাছটি এ মুহূর্তে অপসারণ করা না হলে যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা করছেন এলাকাবাসি।

কেশবপুর পলী বিদ্যুতের ইঞ্জিনিয়ার আমিরুল ইসলাম বলেন, ওই গাছটি অপসারণ করা জরুরী হয়ে পড়েছে। প্রায় সময় ডাল ভেঙে তারের ওপর পড়ে ছিড়ে যাচ্ছে। তখন গ্রাহকদের সেবা দিতে রাত জেগে কাজ করতে হয়।   

এ ব্যাপারে পাঁজিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম মুকুল বলেন, গাছটি সরকারি রাস্তার ওপর। বিষয়টি আমি কর্তপক্ষকে অবহিত করেছি। দুর্ঘটনা এড়াতে সংশিষ্ট ইউপি সদস্যকে ওই বটগাছের ঝুঁকিপূর্ণ ডালগুলি কেটে মাটিতে ফেলে রাখার কথা বলেছি।


 
সর্বশেষ সংবাদ
  • প্রত্যাশিত পদ্মাসেতু প্রকল্পে রেলওয়ে'র স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরুদশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত : ১৮টি বিল পাসস্বাস্থ্যসেবার সুযোগ বাড়াতে ১১ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে এডিবিরোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত
  • প্রত্যাশিত পদ্মাসেতু প্রকল্পে রেলওয়ে'র স্ল্যাব বসানোর কাজ শুরুদশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত : ১৮টি বিল পাসস্বাস্থ্যসেবার সুযোগ বাড়াতে ১১ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দেবে এডিবিরোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে হবে : ওআইসি২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশের-প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগা: বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা রয়েছেআগামী ৩০ অক্টোবরের পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল : ইসি সচিবশেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি আজ ৫'শ মেগা: বিদ্যুৎ সরবরাহের উদ্বোধন করবেনডেঙ্গু বিস্তারের আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদেরদশম জাতীয় সংসদের ২২ তম অধিবেশন চলাকালীন ডিএমপি'র নিষেধাজ্ঞাশক্তিশালী পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ৫১ হজ ফ্লাইটে ১৮ হাজার ৬৯৩ জন হাজী দেশে ফিরেছেনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষে : ইসি সচিবরুট পারমিটবিহীন যান চলাচল বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশসমূদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছেরোহিঙ্গা গণহত্যার দায়ে মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের বিচার আহ্বান জাতিসংঘের তদন্তকারীদলের ঝিকরগাছা পৌর আ'লীগের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস হোসেনের অন্তিম বিদায় থাইল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ষষ্ঠ স্থান নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশআজ জাতীয় বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী শোলাকিয়া ময়দানে দেশের বৃহত্তম ঐতিহাসিক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিতত্যাগের মহিমায় সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত
উপরে