প্রকাশ : ০৫ জুলাই, ২০১৮ ০২:১৪:৩৭
মামলা হলেও পুলিশ নিরব : জমি নিয়ে বিরোধে ৭ পরিবার নিরাপত্তাহীন
বাংলাদেশ বাণী, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী সাদুল্যাপুর উপজেলার সীমানায়  জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংর্ঘষ, বসতবাড়ি ভাংচুর ও লুটতরাজের ঘটনায় ৭টি পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় স্ত্রী, পুত্র ও পরিজন নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

যার কারণে ওই পরিবারের স্কুল ও কলেজগামী ছেলে মেয়েরা চলতি অর্ধবাষিকী পরীক্ষা দিতে এমনকি  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না। উভয় থানায় পৃথক মামলা হলেও পুলিশ নিরব ভুমিকা পালন করছে। ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা পুলিশ সুপারের নিকট স্ব-শরীরে উপস্থিত হয়ে অভিযোগ করেও কোন ফল পায়নি।

মামলা এবং অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে সাদুল্যাপুর উপজেলার কিশামত হামিদ গ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে আনছার আলীসহ তার শরীকদের সাথে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম রামজীবন গ্রামের আব্বাছ আলীর ছেলে আতাউর রহমান ও তার শরীকদের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

গত ২০ জুন আনছার আলীর লোকজনরা জমি জবর দখল করতে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে আনছার আলীর লোকজনরা হামলা চালিয়ে আতাউর রহমানের ভাই আকবর আলী, আব্দুল গফুর, নাজিম উদ্দিন, নাছির উদ্দিন, রফিকুল ইসলাম, ভাতিজা নুরুজ্জামান মিয়া বসতবাড়ি এবং হোসেন আলীর দোকানঘর ভাংচুর ও লুটতরাজ করে। ঘটনার দিন থেকে ৭টি পরিবার  স্ত্রী, পুত্র ও পরিজন নিয়ে প্রতিপক্ষের হুমকির ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

এ নিয়ে উভয় থানায় পৃথক মামলা হলেও পুলিশ নিরব ভুমিকা পালন করছে। ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্য ও মামলার বাদী আতাউর রহমান জানান- গত রোববার তিনি আরও কয়েকজন সদস্যসহ গাইবান্ধা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়ার সাথে দেখা করেন। তারা ৭টি পরিবারের নিরাপত্তাহীনতার বিষয়টি তুলে ধরেন।

পুলিশ সুপার প্রায়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস প্রদান কররেও আজ পর্যন্ত কোন প্রকার প্রতিকার পায়নি তারা। সাদুল্যাপুর থানার মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এমরানুল কবির জানান,এ নিয়ে কয়েকটি মামলা রয়েছে। ওই পরিবারের সদস্যরাও মামলার আসামি। তারা পুলিশের ভয়ে না এমনি পলাতক রয়েছে সেটি আমার জানা নাই। তবে যারা আসামি নয় বা স্কুল ও কলেজগামী ছেলে মেয়েরা রয়েছে তারা বাড়িতে অবশ্যই অবস্থান করবে।




 
সর্বশেষ সংবাদ
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
  • ২১ আগষ্টসহ বার বার এই দেশকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল ওরা...!২১ আগষ্টের জড়িতরা এখন কোথায়? বর্বরতম গ্রেনেড হামলার দিন পুলিশের ছত্রছায়ায় প্রাসাদে ঘুমাচ্ছেন নাফ সিমান্তের অধরা ইয়াবা গডফাদাররা !রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধা
উপরে