প্রকাশ : ২২ জুন, ২০১৮ ১২:২৯:১৬
জেনে রাখুন : হার্টকে রক্ষা করে সঠিক জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাস
বাংলাদেশ বাণী, লাইফস্টাইল ডেস্ক : বয়স ৪০ পার হয়েছে। খাওয়া দাওয়ায় একটু সতর্কতা অবলম্বন করলে, শারিরীক ও মানসিক শক্তি যোগাবে আপনার।

জেনে নিন, হার্টকে রক্ষা করে সঠিক জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাস। ডাক্তারের কাছে গেলেই ফি/টেষ্ট বাবদ মিনিমাম ৩০০০/= টাকা খসবে। তাই, একবার পড়লে উপকার হবার সম্ভাবনা শতভাগ।
প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নিয়েছেন, হার্ট সার্জন কুণাল সরকার, (ভারত)।

প্রশ্ন : আমরা জানতাম রক্তে কোলেস্টেরল বেশি থাকা হার্টের পক্ষে বিপজ্জনক৷ এখন শুনছি তা না থাকলেও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে?
উত্তর : যত জন মানুষ ইস্কিমিক হার্ট ডিজিজ বা তার পরিণতিতে হার্ট অ্যাটাকে ভোগেন, তার মধ্যে মাত্র ২০ শতাংশের কোলেস্টেরল বেশি থাকে৷ কাজেই বুঝতেই পারছেন, কোলেস্টেরল মাপে মাপে থাকলেই আপনি নিরাপদ, এমন নয়৷
প্রশ্ন : সুগার ঠিক থাকলেও তো হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে দেখা যাচ্ছে৷ তা হলে?
উত্তর : ডায়াবেটিক রোগীর রক্তে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকা আর সব কিছু আয়ত্তে থাকা এক নয়৷ কাজেই শুধু সুগার মাপলে হবে না৷ বছরে এক বার হার্ট, কিডনি, চোখ ইত্যাদি ঠিক আছে কি না দেখে নিতে হবে৷ কারণ এই রোগ এমনই যে তলে তলে সব প্রত্যঙ্গকে খারাপ করে৷ তার পর এক দিন আচমকা বড় বিপদ ঘটে যায়৷ রোগ পুরনো হলে তো বিশেষ করে৷
প্রশ্ন : হার্ট খারাপ হচ্ছে কি না জানতে কী করতে হবে?
উত্তর : বিশেষজ্ঞের পরামর্শমতো ইসিজি, ইকোকার্ডিওগ্রাফি, ট্রেডমিল টেস্ট ও কিছু রক্ত পরীক্ষা করে দেখে নিতে হবে সব ঠিক আছে কি না৷
প্রশ্ন : এ সব ঠিক থাকলে আর ভয় নেই?
উত্তর : ঠিক তা নয়৷ যা-ই করুন না কেন, ডায়াবেটিস থাকলে হার্ট-সহ শরীরের অভ্যন্তরীণ প্রত্যঙ্গগুলি একটু একটু করে খারাপ হবে৷ সতর্ক হয়ে চললে, আগে থেকে ব্যবস্থা নিলে এই যে আচমকা হার্ট অ্যাটাক হয়ে স্থায়ী জখম হচ্ছে, কি খারাপ পরিস্থিতিতে প্রাণ চলে যাচ্ছে, তা ঠেকানো যাবে অধিকাংশ ক্ষেত্রে৷
প্রশ্ন : কী ব্যবস্থা নিতে হবে?
উত্তর : ব্যবস্থা তো নির্ভর করে অবস্থার উপর৷ সেটা প্রয়োজনমতো করা যাবে৷ কিন্তু আমরা চাই মানুষ এমন ভাবে চলুন যাতে কঠিন অবস্থায় তাঁকে না পড়তে হয়৷
প্রশ্ন : কী রকম?
উত্তর : প্রথম কাজ খাওয়া–দাওয়ায় নিয়ন্ত্রণ আনা৷
প্রশ্ন : নিয়ন্ত্রণ বলতে ফ্যাট জাতীয় কিছু না খাওয়া তো? ঘি–মাখন বাদ দেওয়া, তেল কম খাওয়া, এ সব আজকাল সবাই জানেন৷
উত্তর : ইস্কিমিক হার্ট ডিজিজ বা হার্ট অ্যাটাকের জন্য সব ফ্যাটকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোটাই হল বড় ভুল৷ তা হলে তো বরফের দেশের মানুষেরা সব দলে দলে মারা যেতেন৷ কারণ তাঁদের খাবারে ৯০ শতাংশের মতো ফ্যাট থাকে৷ তাঁদের কিন্তু হৃদরোগ হয় না বললেই চলে৷ কাজেই রোজ রোজ তেল–ঘিয়ে ঠাসা খাবার খাবেন না ঠিকই, কিন্তু উপকারী ফ্যাট কিছু খেতেই হবে৷ এরা হার্টকে খারাপ করার বদলে রক্ষা করবে৷

(Mir Rezaul Hossain.-এর ফেসবুক পেজ থেকে সংগৃহিত।)

তথ্যসূত্র : (আনন্দ বাজার পত্রিকা)

 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
উপরে