প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি, ২০১৭ ১২:০৪:০৪
আখেরি মোনাজাতে “আমিন, আমিন” ধ্বনিতে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা
বাংলাদেশ বাণী, নিজস্ব প্রতিবেদক : দুনিয়া-আখেরাতের কল্যাণ কামনা ও বিশ্ব শান্তির জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে সাহায্যে চেয়ে শেষ হলো মুসলমানদের অন্যতম বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আর এর সাথেই শেষ হয়েছে এ বছরের বিশ্ব ইজতেমা। টঙ্গীর তুরাগ তীরের এই জমায়েতে লাখ লাখ মুসল্লি উপস্থিত হয়ে মোনাজাতে অংশ নেন। মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করতে আল্লাহর দরবারে রহমত প্রার্থনা করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। তাদের অশ্রুভেজা কান্না আর আমিন, আমিন শব্দে কহর দরিয়া খ্যাত তুরাগ তীরে বিরাজ করে অন্যরকম ধর্মীয় আমেজ।

মোনাজাতে মাওলানা মোহাম্মদ সাদ আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে দ্বীনের ওপর সবাই যেন চলতে পারে সে দোয়া করেন। এছাড়া দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে মানুষকে হেফাজত করতে আল্লাহর কাছে সাহায্য চান। তার সঙ্গে দুহাত তুলে আমিন আল্লাহুম্ম আমিন ধ্বনি তুলে কান্নায় ভেঙে পড়েন উপস্থিত মুসল্লিরা। অশ্রুসিক্ত মুসল্লিরা নিজের গুনাহ মুক্তি চেয়ে মহান আল্লার কাছে ফরিয়াদ করেন।

এর আগে ভোর থেকে শুর হয় দিক-নির্দেশনামূলক বয়ান। শীর্ষস্থানীয় অনেক আলেম ইসলামের পথে সঠিকভাবে চলার জন্য মুসল্লিদের উদ্দেশ্য বয়ান দেন। সকাল সাড়ে আটটার দিকে হেদায়েতি বয়ান শুরু করেন মাওলানা সাদ। বয়ান শেষে সকাল ১১টায় শুরু হয় দীর্ঘ প্রতীক্ষিত আখেরি মোনাজাত। মোনাজাত শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই জনসমুদ্রে হঠাৎ নেমে আসে পিনপতন নীরবতা। যে যেখানে ছিলেন, সেখানেই দাঁড়িয়ে কিংবা বসে হাত তোলেন আল্লাহর দরবারে। কান্নায় বুক ভাসান মুসল্লিরা।

প্রায় ৩৫ মিনিটের মোনাজাতে মাওলানা সাদ প্রথম কয়েক মিনিট পবিত্র কোরআনে বর্ণিত দোয়ার আয়াতগুলো উচ্চারণ করেন। শেষের দিকে দোয়া করেন উর্দু ভাষায়। মুঠোফোন ও স্যাটেলাইট টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারের সুবাদে দেশ-বিদেশের লাখো মানুষ একসঙ্গে হাত তোলেন দোয়ায় শরিক হন।

তাবলিগ জামাতের আয়োজনে মুসলমানদের অন্যতম এই বৃহত্তম সমাবেশের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে শনিবার রাত থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেন মুসল্লিরা। আর রবিবার ভোরে শীতকে উপেক্ষা করে রাজধানী ও এর আশপাশের এলাকার লোকজন রওনা হয় ইজতেমা ময়দানের দিকে। সকাল সাড়ে আটটার আগেই ইজতেমা ময়দানসহ আশপাশ এলাকার সড়ক-মহাসড়ক, অলি-গলি ও খালি জায়গায় মুসল্লিদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় পুরো ইজতেমা এলাকা।

ইজতেমাস্থলে পৌঁছতে না পেরে অনেক মুসল্লি আখেরি মোনাজাতের জন্য খবরের কাগজ, পাটি, বস্তা ও পলিথিন বিছিয়ে কামাড়পাড়া সড়ক ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এবং অলি-গলিসহ বিভিন্নস্থানে অবস্থান নেন। নানা বয়সী বিভিন্ন পেশার মানুষের পাশাপাশি নারীদেরও মোনাজাতে অংশ নিতে দেখা যায়। এমনকি বাসা-বাড়ি ও কারখানার ছাদ, নৌকা, বাসের ছাদ, ফুটওভার ব্রিজ-যে যেখানে পেরেছেন সেখানেই বসে দুই হাত তুলে মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, তাবলিগ জামাতের উদ্যোগে বাংলাদেশে আয়োজিত ৫২তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দফার আখেরি মোনাজাতে কয়েক লাখ মুসল্লি অংশ নেন। পাশাপাশি বিশ্বের ৯৫ দেশের কয়েক হাজার মেহমানও ইজতেমার এবারের পর্বে অংশ নেন।



 
সর্বশেষ সংবাদ
  • হাওর অঞ্চলে ৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সরকারআ’লীগ কাউকে তোষামোদী করে নির্বাচনে আনবে না : সিলেটে খাদ্যমন্ত্রীরাজনৈতিক চাপে রুয়েট রেজিস্ট্রারের পদত্যাগ !ঢাকা-থিম্পু উন্নয়নের জন্য একযোগে কাজ করার ব্যাপারে যৌথ বিবৃতি‘অসাম্প্রদায়িক আলেমদেরও একশ্রেণির বামপন্থী জনবিচ্ছিন্ন করে রাখতে চায়’মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী একজন দেশ প্রেমিকের স্মৃতিকথা- ‘আমি ছোট্ট নৌকা দিয়ে তাহিরপুরে পৌছাই’ : রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভুটানে লাল গালিচা অভ্যর্থনা বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে ৫ চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরআজ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস, বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীপ্রধানমন্ত্রী ৩৩৯ জন ক্রীড়াবিদকে নিজহাতে পুরস্কৃত করলেনশপথ নিয়েছেন নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য জয়া সেন গুপ্তাবাংলাদেশ ও ভারতের নৌ-প্রটোকলে যুক্ত হতে যাচ্ছে ভুটানরাজধানীর মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার নির্মাণে ফের ব্যয় বাড়লোআজ দেশের ১৭৪টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির বাংলা নববর্ষের সংবর্ধনান্যাম ফ্লাট এমপিরা ব্যবহার না করলে, তাদের বরাদ্দ বাতিল : প্রধানমন্ত্রীরাজধানীসহ সারাদেশে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় নববর্ষ উদযাপিত হয়েছে : আইজিপিসিলেটে নিহত ২ ছাত্রলীগ নেতাকে প্রধানমন্ত্রীর ২০ লক্ষ টাকা অনুদানকওমি শিক্ষা সনদের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়
  • হাওর অঞ্চলে ৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সরকারআ’লীগ কাউকে তোষামোদী করে নির্বাচনে আনবে না : সিলেটে খাদ্যমন্ত্রীরাজনৈতিক চাপে রুয়েট রেজিস্ট্রারের পদত্যাগ !ঢাকা-থিম্পু উন্নয়নের জন্য একযোগে কাজ করার ব্যাপারে যৌথ বিবৃতি‘অসাম্প্রদায়িক আলেমদেরও একশ্রেণির বামপন্থী জনবিচ্ছিন্ন করে রাখতে চায়’মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী একজন দেশ প্রেমিকের স্মৃতিকথা- ‘আমি ছোট্ট নৌকা দিয়ে তাহিরপুরে পৌছাই’ : রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভুটানে লাল গালিচা অভ্যর্থনা বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে ৫ চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরআজ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস, বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণীপ্রধানমন্ত্রী ৩৩৯ জন ক্রীড়াবিদকে নিজহাতে পুরস্কৃত করলেনশপথ নিয়েছেন নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য জয়া সেন গুপ্তাবাংলাদেশ ও ভারতের নৌ-প্রটোকলে যুক্ত হতে যাচ্ছে ভুটানরাজধানীর মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার নির্মাণে ফের ব্যয় বাড়লোআজ দেশের ১৭৪টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির বাংলা নববর্ষের সংবর্ধনান্যাম ফ্লাট এমপিরা ব্যবহার না করলে, তাদের বরাদ্দ বাতিল : প্রধানমন্ত্রীরাজধানীসহ সারাদেশে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় নববর্ষ উদযাপিত হয়েছে : আইজিপিসিলেটে নিহত ২ ছাত্রলীগ নেতাকে প্রধানমন্ত্রীর ২০ লক্ষ টাকা অনুদানকওমি শিক্ষা সনদের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়
উপরে