প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি, ২০১৭ ১২:০৪:০৪
আখেরি মোনাজাতে “আমিন, আমিন” ধ্বনিতে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা
বাংলাদেশ বাণী, নিজস্ব প্রতিবেদক : দুনিয়া-আখেরাতের কল্যাণ কামনা ও বিশ্ব শান্তির জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে সাহায্যে চেয়ে শেষ হলো মুসলমানদের অন্যতম বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আর এর সাথেই শেষ হয়েছে এ বছরের বিশ্ব ইজতেমা। টঙ্গীর তুরাগ তীরের এই জমায়েতে লাখ লাখ মুসল্লি উপস্থিত হয়ে মোনাজাতে অংশ নেন। মোনাজাতে আত্মশুদ্ধি ও নিজ নিজ গুনাহ মাফের পাশাপাশি দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত করতে আল্লাহর দরবারে রহমত প্রার্থনা করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। তাদের অশ্রুভেজা কান্না আর আমিন, আমিন শব্দে কহর দরিয়া খ্যাত তুরাগ তীরে বিরাজ করে অন্যরকম ধর্মীয় আমেজ।

মোনাজাতে মাওলানা মোহাম্মদ সাদ আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে দ্বীনের ওপর সবাই যেন চলতে পারে সে দোয়া করেন। এছাড়া দুনিয়ার সব বালা-মুসিবত থেকে মানুষকে হেফাজত করতে আল্লাহর কাছে সাহায্য চান। তার সঙ্গে দুহাত তুলে আমিন আল্লাহুম্ম আমিন ধ্বনি তুলে কান্নায় ভেঙে পড়েন উপস্থিত মুসল্লিরা। অশ্রুসিক্ত মুসল্লিরা নিজের গুনাহ মুক্তি চেয়ে মহান আল্লার কাছে ফরিয়াদ করেন।

এর আগে ভোর থেকে শুর হয় দিক-নির্দেশনামূলক বয়ান। শীর্ষস্থানীয় অনেক আলেম ইসলামের পথে সঠিকভাবে চলার জন্য মুসল্লিদের উদ্দেশ্য বয়ান দেন। সকাল সাড়ে আটটার দিকে হেদায়েতি বয়ান শুরু করেন মাওলানা সাদ। বয়ান শেষে সকাল ১১টায় শুরু হয় দীর্ঘ প্রতীক্ষিত আখেরি মোনাজাত। মোনাজাত শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই জনসমুদ্রে হঠাৎ নেমে আসে পিনপতন নীরবতা। যে যেখানে ছিলেন, সেখানেই দাঁড়িয়ে কিংবা বসে হাত তোলেন আল্লাহর দরবারে। কান্নায় বুক ভাসান মুসল্লিরা।

প্রায় ৩৫ মিনিটের মোনাজাতে মাওলানা সাদ প্রথম কয়েক মিনিট পবিত্র কোরআনে বর্ণিত দোয়ার আয়াতগুলো উচ্চারণ করেন। শেষের দিকে দোয়া করেন উর্দু ভাষায়। মুঠোফোন ও স্যাটেলাইট টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারের সুবাদে দেশ-বিদেশের লাখো মানুষ একসঙ্গে হাত তোলেন দোয়ায় শরিক হন।

তাবলিগ জামাতের আয়োজনে মুসলমানদের অন্যতম এই বৃহত্তম সমাবেশের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে শনিবার রাত থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ইজতেমা ময়দানে আসতে শুরু করেন মুসল্লিরা। আর রবিবার ভোরে শীতকে উপেক্ষা করে রাজধানী ও এর আশপাশের এলাকার লোকজন রওনা হয় ইজতেমা ময়দানের দিকে। সকাল সাড়ে আটটার আগেই ইজতেমা ময়দানসহ আশপাশ এলাকার সড়ক-মহাসড়ক, অলি-গলি ও খালি জায়গায় মুসল্লিদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় পুরো ইজতেমা এলাকা।

ইজতেমাস্থলে পৌঁছতে না পেরে অনেক মুসল্লি আখেরি মোনাজাতের জন্য খবরের কাগজ, পাটি, বস্তা ও পলিথিন বিছিয়ে কামাড়পাড়া সড়ক ও ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এবং অলি-গলিসহ বিভিন্নস্থানে অবস্থান নেন। নানা বয়সী বিভিন্ন পেশার মানুষের পাশাপাশি নারীদেরও মোনাজাতে অংশ নিতে দেখা যায়। এমনকি বাসা-বাড়ি ও কারখানার ছাদ, নৌকা, বাসের ছাদ, ফুটওভার ব্রিজ-যে যেখানে পেরেছেন সেখানেই বসে দুই হাত তুলে মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, তাবলিগ জামাতের উদ্যোগে বাংলাদেশে আয়োজিত ৫২তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দফার আখেরি মোনাজাতে কয়েক লাখ মুসল্লি অংশ নেন। পাশাপাশি বিশ্বের ৯৫ দেশের কয়েক হাজার মেহমানও ইজতেমার এবারের পর্বে অংশ নেন।



 
সর্বশেষ সংবাদ
  • সুন্দরগঞ্জের এমপি লিটন হত্যা : সাবেক এমপি কাদের খান ১০ দিনের রিমান্ডেনরসিংদীতে তিন ভাই-বোনকে শ্বাসরোধে হত্যা, ঘাতক রুবেল আটকনারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ সন্ত্রাসী নিহতএমপি লিটন হত্যাকাণ্ড : অবশেষে সাবেক এমপি ডা. কাদের খান গ্রেপ্তারভাষার টানে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ২১ শে’র মঞ্চে’ বেনাপোলে বসে মিলন মেলারাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র জাতির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ একুশ মাথা উঁচু করে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে শেখায় : প্রধানমন্ত্রীঅমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ ॥ ‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি...।’গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে দায়িত্ব পালনে নির্বাচন কমিশনের সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহবানহত্যা মামলার প্রধান আসামীর হাত ধরে সরকার দলীয় এমপি রতনের শোডাউন!সুনামগঞ্জ-৫ আসনেই প্রার্থী পরিবর্তনের ডাক-‘গণবিচ্ছিন্ন মন্ত্রী ও সাংসদের প্রতি আ’লীগে তৃণমূলের ক্ষোভ বাড়ছেই’ সাবাস চেয়ারম্যান আবুল ইসলামের আজ ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী ফলোআপ : বাগেরহাটে ভুল ইনজেকশনে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠনসুনামগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর পোষ্টারে আগুন ও কালীমূর্তি ভাঙ্গচূর মামলার পুণঃতদন্ত"নাম বদলের সুযোগ নাই, কুমিল্লা নামে'ই বিভাগ চাই" : কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদের দাবীজগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ, প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে ছুটছেবাগেরহাটে ভুল ইনজেকশনে মুক্তিযোদ্ধাহ মৃত্যুহামলা-মামলায় আর নির্যাতন থেকে সাংবাদিক সুরক্ষায় দেশে বিশেষ কোন আইন নেই : তথ্যমন্ত্রীমানুষ হত্যাকারীদের সাথে কোন আপোষ নয় : শিল্পমন্ত্রীমাটিরাঙ্গায় মধ্যরাতে ইউপিডিএফে’র ব্রাশ ফায়ার
  • সুন্দরগঞ্জের এমপি লিটন হত্যা : সাবেক এমপি কাদের খান ১০ দিনের রিমান্ডেনরসিংদীতে তিন ভাই-বোনকে শ্বাসরোধে হত্যা, ঘাতক রুবেল আটকনারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ সন্ত্রাসী নিহতএমপি লিটন হত্যাকাণ্ড : অবশেষে সাবেক এমপি ডা. কাদের খান গ্রেপ্তারভাষার টানে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ২১ শে’র মঞ্চে’ বেনাপোলে বসে মিলন মেলারাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র জাতির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ একুশ মাথা উঁচু করে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে শেখায় : প্রধানমন্ত্রীঅমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ ॥ ‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি...।’গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে দায়িত্ব পালনে নির্বাচন কমিশনের সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহবানহত্যা মামলার প্রধান আসামীর হাত ধরে সরকার দলীয় এমপি রতনের শোডাউন!সুনামগঞ্জ-৫ আসনেই প্রার্থী পরিবর্তনের ডাক-‘গণবিচ্ছিন্ন মন্ত্রী ও সাংসদের প্রতি আ’লীগে তৃণমূলের ক্ষোভ বাড়ছেই’ সাবাস চেয়ারম্যান আবুল ইসলামের আজ ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী ফলোআপ : বাগেরহাটে ভুল ইনজেকশনে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু, তদন্ত কমিটি গঠনসুনামগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর পোষ্টারে আগুন ও কালীমূর্তি ভাঙ্গচূর মামলার পুণঃতদন্ত"নাম বদলের সুযোগ নাই, কুমিল্লা নামে'ই বিভাগ চাই" : কুমিল্লা বিভাগ বাস্তবায়ন পরিষদের দাবীজগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ, প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে ছুটছেবাগেরহাটে ভুল ইনজেকশনে মুক্তিযোদ্ধাহ মৃত্যুহামলা-মামলায় আর নির্যাতন থেকে সাংবাদিক সুরক্ষায় দেশে বিশেষ কোন আইন নেই : তথ্যমন্ত্রীমানুষ হত্যাকারীদের সাথে কোন আপোষ নয় : শিল্পমন্ত্রীমাটিরাঙ্গায় মধ্যরাতে ইউপিডিএফে’র ব্রাশ ফায়ার
উপরে