প্রকাশ : ০১ জুলাই, ২০১৮ ২৩:০১:২৭
পারিবারিক কলহের জেরে আমতলীতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ
বাংলাদেশ বাণী, আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা : আমতলীর গোছখালী গ্রামে ১ সন্তানের জননী বনশ্রী মিস্ত্রি (২৫) নামে এক গৃহবধূকে পারিবারিক কলহের জের ধরে হত্যার পর, লাশ ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। বনশ্রীর স্বামী পলাশ চন্দ্র হাওলাদার (৩০) এ ঘটনার পরপরই  আত্মগোপন করে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পটুয়াখালী পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের সুশিল চন্দ্র মিস্ত্রির মেয়ে বনশ্রীর সাথে আমতলী উপজেলার গোছখালী গ্রামের অভিলাশ হাওলাদারের ছেলে পলাশ চন্দ্র হাওলাদারের সাথে ২০১২ সালে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর তাদের সংসার ভাল ভাবে কাটলেও কয়েকদিন আগে পলাশ পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার পাখিমারা গ্রামে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সপ্তাহ খানেক আগে বিষয়টি জানা জানি হলে পলাশ ও বনশ্রীর মধ্যে কলহ সৃষ্টি হয়।

এনিয়ে আজ সোমবার উভয় পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সালিস বৈঠকের কথা ছিল। এর আগেই রবিবার রাত ১টার দিকে বনশ্রী গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পলাশের পরিবারের পক্ষ থেকে দাবী করে বাবা সুশিল চন্দ্র মিস্ত্রীকে জানায়।

খবর পেয়ে সে মেয়ের বাড়ি এসে মেয়ের এ মর্মান্তিক এ হত্যার ঘটনা জানতে পারেন। বনশ্রীর বাবা সুশিল চন্দ্র মিস্ত্রী জানান, আমার মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে  হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে পলাশের পরিবারের পক্ষ থেকে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। আমি আমার মেয়ের হত্যার বিচার চাই।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আলাউদ্দিন মিলন জানান, খবর পেয়ে ঘরের মেঝে থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, তার আত্মহত্যার ঘটনাটি সন্দেহ জনক। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
উপরে