প্রকাশ : ২৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:৩৫:০৪
কেশবপুরে মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়ে তোপের মুখে গ্রামবাসি
বাংলাদেশ বাণী, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের কেশবপুরের চি‎ি‎হ্নত মাদক ব্যবসায়ী একাধিক মামলার আসামী রুহুল আমীনকে গ্রেফতারের দাবিতে গণপিটিশন দাখিল করে তোপের মুখে পড়েছে উপজেলার মজিদপুর গ্রামবাসি।
গত বৃহস্পতিবার শতাধিক লোকের স্বাক্ষরিত গণপিটিশনটি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে দাখিল করলে তিনি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন। কিন্তু গত এক সপ্তাহেও রুহুল আমীন গ্রেফতার না হওয়ায় সে ও তার সহযোগিরা বেপরোয়া হয়ে একের পর এক ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকি দিচ্ছে অভিযোগকারীদের।    

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মজিদপুর গ্রামের মৃত ইমান আলী বিশ্বাসের ছেলে রুহুল আমীন বিশ্বাস যুগ যুগ ধরে গাজা, হেরোইন ও ইয়াবার ব্যবসা করে আসছে। তার বাড়িতে প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এসব মাদক দ্রব্য বেচা কেনা হয়ে থাকে। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গ্রামের সুশীল সমাজ এক সময় তার বাড়িঘর ভাঙচুরসহ একাধিক বার পুলিশে দেয়।

এরপরও তার মাদক ব্যবসা বন্ধ না হওয়ায় গ্রামবাসির অভিযোগের ভিত্তিতে কেশবপুরের সাবেক ইউএনও খান মো. নূরুল আমীন মাদক ব্যবসায়ী রুহুল আমীনকে তওবা পড়ায় এবং সে আর কোন দিন মাদক বিক্রি করবে না বলে অঙ্গিকার করে। এরপরও সে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যেতে থাকলে ২ বছর আগে যশোরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমার্পণ করে অঙ্গিকার করে আসে। কিন্তু থেমে থাকেনি তার মাদক ব্যবসা।

তার বিরুদ্ধে কেশবপুর ও মনিরামপুর থানায় গাজা, হেরোইন ইয়াবাসহ ১৬/১৭টি মাদকের মামলা রয়েছে। বর্তমান সে কৌশল পরিবর্তন করে গরু ব্যবসার নামে বিভিন্ন স্থানে গাজা ও ইয়াবা বিক্রি করেছে। পুলিশ মাঝেমধ্যে তাকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করলেও সে বেরিয়ে এসে আবার পুরোদমে ব্যবসা চালিয়ে যায়। যে কারণে ওই গ্রাম থেকে মাদক উচ্ছেদ হচ্ছে না।

বর্তমান রুহুল আমীন এলাকায় পুরোদমে গাজা ও ইয়াবার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। ভঁয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছে না। তার বাড়িতে প্রতিদিন নতুন নতুন মাদক সেবীর আগমনে সাধারণ মানুষের মাঝে ভীতির সঞ্চার হচ্ছে। ফলে এলাকার স্কুল, কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থী ও যুব সমাজ ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এসব খোরেরা আশপাশের ফসল মাড়িয়ে মাদকের নেশা করে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করছে। এ কারণে গ্রামবাসি তাদের সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে রুহুল আমীন ও তার সহযোগীর গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে।

এদিকে, গত ১ সপ্তাহেও রুহুল আমীন ও তার সহযোগিরা গ্রেফতার না হওয়ায় তারা বেপরোয়া হয়ে অভিযোগকারীদের ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকি অব্যাহত রেখেছে। এমনকি তাদের মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করারও হুমকি দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে থানার উপপরিদর্শক শেখ মাহফুজার রহমান বলেন, এলাকাবাসির স্বাক্ষরিত অভিযোগটি পেয়েছি। গত ২৫ অক্টোবর তাদরকে ধরতে অভিযান চালিয়েও পাওয়া যায়নি। অভিযান অব্যাহত আছে।    


 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
উপরে