প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০২:৪৪:৩৩
পঞ্চগড়ে গ্রাম পুলিশের জীবনমান না বাড়ায় পরিবারগুলোর মানবেতর জীবন-যাপন
বাংলাদেশ বাণী, পঞ্চগড় থেকে কামরুল ইসলাম কামু : বেতন ভাতা বাড়বে, এমন আশায় বুক বেঁধে আছে হাজারো গ্রাম পুলিশ। তাদের দুরন্তপনা মানসিকতার অবিরাম পথচলা যেন মনে করিয়ে দেয়, সেই ব্রিটিশ উপনিবেসিক শাসনামলের ডাক বহন করা রানারের কথা। পুলিশ হোক আর প্রশাসন, সকলের নির্দেশ-পরার্মশ শুনতে হয়।

পারিপার্শ্বিকতার কিছুটা সামর্থ্যের যোগান থাকলে হয়তো একটি বাইকেল মিলে। না হলে হেটেঁ নয়তো ভ্যান-রিকসায় তাদের চলতে হয়। তাদের ছেলে-মেয়েরা অন্য সব চাকুরীজীদের মত লেখাপড়া করতে পারেনা। তারপরে বছরে দুটি উৎসবে সমান অংকের টাকা পান। যা যৎ সামান্য।
প্রতি ইউনিয়নে গ্রাম পুলিশের মধ্যে মহল্লাদার রয়েছে ৯ জন ও দফাদার ১ জন। সে অনুযায়ী পঞ্চগড়ের ৪৩ টি ইউনিয়নে মোট গ্রাম পুলিশের সংখ্যা ৪৩০ জন। তাদের সবাই অল্প ভাতায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর-জীবন যাপন করছে।

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের গ্রাম-মহল্লায় বিশেষ দ্রুত হিসেবে এরা সক্ষমতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি থানা পুলিশের ডাকে তারা সারা দেন, করেন নানা সামাজিক পরিমন্ডলে পদচারন। গ্রাম মহল্লায় ছোট-বড় সামাজিক অপরাধ দমন বা অপরাধীদের খোঁজ-খবর রাখেন তারা।

অন্য দশ জনের মত এই গ্রাম পুলিশদের জীবন-মান একটু আলাদা। কম বেতন-ভাতায় চাকুরী করায় এদের তেমন মূল্যায়ন নেই। অবহেলিত জীবনে পথচলা বড়ই কষ্টের। তারা সরকারের একটি পার্ট বলে দুঃখ হলেও মনে খুশি নিয়ে কাজ করে।

পঞ্চগড়ের বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের  গ্রাম পুলিশ ও গ্রাম পুলিশের তেতুঁলিয়া উপজেলার সভাপতি মোঃ মনছুর রহমান (৫০) বলেন, মাসে হিসেবে  থানায় ‌দু’বার হাজিরা ৬০০ শত এবং ৩০০০ হাজার টাকা ভাতা সহ মোট পাই ৩৬০০ টাকা। যা খুব কষ্টের, সংসার চালাতে খুব হিমশীম খেতে হয়। আমার ভাইরা কিছু সহযোগিতা করে বলে চলতে পারি। মনছুর রহমান বলেন, কাছের ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মাসে থানায় চার বার হাজিরা দিয়ে পান মাসে ১২০০ টাকা। এই হাজিরার টাকা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান। তিনি বলেন, ১৯৯০ ইং সালে ভাতা ছিলো ৩০০ শত টাকা।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ  মোঃ ছবি কি করবেন, ছেলে-মেয়ে নিয়ে খুব কষ্ট করে চলতে হয়। আমাদের দিকে কেউ দৃষ্টি দেয়না। ইউ এনও স্যার চলাচলের জন্য সাইকেল দিতে চেয়েছিলো কিন্তু এখনো পাই নি। তবে বছরে খাকি প্যান্ট ও নীল শার্ট সহ দুই সেট পোশাক পাই। সাথে রয়েছে টুপি, টর্চ লাইট, জুতা মোজা।

সদরের উপজেলার গড়িনাবাড়ী ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মোঃ রোস্তম আলী দুঃখ নিয়ে বলেন, আপনারা সাংবাদিক আমাদের দুঃখের বিষয় কিছু লেখেন। মানুষের বহু কিছু লেখেন। আমাদের দুঃখ দূর্দশা একটু তুলে ধরেন। আর চলতে পারিনা স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে খুব কস্টে চলতে হয়। তিনি বলেন, নূন্যতম ৮০০০ হাজার টাকা ভাতা হলে সংসার নিয়ে একটু চলতে পারি।

তেতুঁলিয়া উপজেলার তীরনই হাট ইউনিয়নের গ্রাম মোঃ কহিনুর বলেন, কি করবো গ্রাম পুলিশে যখন আছি কম ভাতা তো নিতেই হবে। যদি বর্তমান সরকার কিছু করে দেয় তাহলে তো আমরা কিছুটা লাভবান হই। সংসারে ছেলে-মেয়েদের নিয়ে খেয়ে পড়ে বাঁচতে পারি। ভজনপুর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মোঃ খলিল বলেন, এতো কম ভাতা কে চলতে পারে ভাই।

পঞ্চগড় সদর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ ও গ্রাম পুলিশের সভাপতি মোঃ জামরুল হক বলেন, আমরা বহু আন্দোলন সমাবেশ করেছি। আশ^াস ও পেয়েছি। কিন্তু তার বাস্তবতা এখনো চোখে পড়ছেনা। আমরা খুব কষ্টে দিনপার করি।

পঞ্চগড়ের গ্রাম পুলিশ রা বলেন, অবসরে যাওয়ার সময় একাকালীন দফাদাররা পান, ৬০ হাজারা ও মহল্লাদাররা পান ৫০ হাজার টাকা। তারা এটিকে ৫ লাখ টাকায় উন্নীত করার জোর দাবী করে।

এ ব্যাপারে পঞ্চগড় সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোঃ এহতেশাম রেজা বলেন, বর্তমান  গ্রাম পুলিশ ২০১৩ বিধিঅনুযায়ী তাদের এই বেতন (ভাতা) প্রদান করা হচ্ছে।
 
সর্বশেষ সংবাদ
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
  • রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্ত টিম এখন ঢাকায়বিএনপি-জামায়তের ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধুর জন্য জাতিসংঘে সদরদপ্তরে প্রথমবারের মতো জাতীয় শোক দিবসক্রস ফায়ারের মাঝেও মানব পাচার! থেমে নেই অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসারোববার কবি শামসুর রাহমানের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকীঢাকা-দিল্লীর সম্পর্ক এখন নতুন উচ্চতায় : বাংলাদেশ হাইকমিশনারছয় বছর বয়সেই ইসি'র স্মার্টকার্ডবঙ্গবন্ধু বাংলার ইতিহাস : স্বাধীনতা বাঙ্গালীর সোনালী অর্জন বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সঙ্গে জিয়ার যোগাযোগ ছিল : প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা হবে : আইনমন্ত্রী২২ আগস্ট শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন বাঙালীর বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সিক্ত হলেন জাতির জনক মাশরাফির অবসর নিয়ে দু'দিনের মধ্যেই আলোচনায় বসবে বিসিবিটুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনবঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনতে কূটনৈতিক চেষ্টা চলছে : ওবায়দুল কাদেরবঙ্গবন্ধু হত্যার কুশীলবদের মুখোশ উন্মোচনে ‘কমিশন’ গঠনের দাবি জানালেন তথ্যমন্ত্রীবঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী ও সর্বস্তরের জনতার বিনম্র শ্রদ্ধাজাতীয় শোক দিবসে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী'র বাণীআজ জাতীয় শোক দিবস : টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীবঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অপরাধটা কি? সব খুনিদের বিচার হোক
উপরে